অনলাইনে আয় করতে হলে আপনার "স্কিল থাকতে হবেই"

​আমরা বাংলাদেশের প্রথম সম্পূর্ণ ডিজিটাল এডুকেশন প্ল্যাটফর্ম যারা কাজ করে শুধুমাত্র তাদের নিয়ে যারা অনলাইনে ক্যারিয়ার গড়তে আগ্রহী। 

আপনার যদি মনে হয় ক্যাপচা লেখা বা ডাটা এন্ট্রি স্কিল, তাহলে আপনার জন্য প্যাসিভ জার্নাল ইউনিভার্সিটি না। 


আমি কে? কেনই বা আপনি আমার বানানো প্যাসিভ জার্নাল ইউনিভার্সিটি তে জয়েন করবেন? 

আমি খালিদ ফারহান। আমি ইন্টারনেট মার্কেটিং এর সাথে যুক্ত আছি ২০১১ সাল থেকে। আমার নাম "Khalid Farhan" লিখে গুগল করলে আমার ব্যপারে আরো জানতে পারবেন। এছাড়া আমি Passive Journal এবং Passive Digital নামে ২টি কোম্পানির ফাউন্ডার। আমার ব্যক্তিগত ব্লগ পড়তে পারবেন এখানেঃ Khalid Farhan 

এই সব কিছু ছাড়াও, আমি মাঝে মধ্যে আপনাদের জন্য আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও  ও বানিয়ে থাকি।

বাংলাদেশে "অনলাইন আয়" এবং কোচিং নিয়ে ধান্দাবাজি চলছিল বেশ অনেক দিন ধরেই। আমরা ভাবলাম, কিভাবে এই ধান্দাবাজি বন্ধ করা যায় এবং এমন কিছু করা যায় যেন মানুষ আসলেই কাজ করতে পারে এবং আয় করতে পারে কাজ করে? আইডিয়া টা ছিল খুব সহজ। আমরা একটা প্ল্যাটফর্ম বানাবো। কোন কোর্স না। একটি পুরো প্ল্যাটফর্ম যেখানে অসংখ্য কোর্স থাকবে। আপনি একসাথে দেখতে পারবেন সব কিছুই। 

আমাদের ব্লগ পোস্ট গুলো


কিভাবে একজন ইউটিউবার হয়ে আয় করবেন?
বাংলাদেশে ইউটিউব থেকে আয় করা ব্যপার টা নিয়ে ইদানীং খুব বেশি হাউকাউ হচ্ছে। যদিও ইউটিউব থেকে আয় করার নিয়ম টি ইউটিউবের আছে বেশ অনেক দিন ধরেই, তবে বাংলাদেশে ইউটিউব সাধারণের কাছে জনপ্রিয় হয়েছে কয়েক বছর ধরেই। যখন ই ৩জি আসলো, সবাই এটাই ধারণা করেছিল এবং এই ধারণাই পরে ঠিক হয়।  যাই হোক, ইউটিউব একটা অসাধারণ জায়গা সবার জন্যেই। জ্ঞান এর বিশাল ভাণ্ডার ইউটিউব যদি আপনি ঠিক মত ব্যবহার করতে পারেন।আজকের আর্টিকেল অবশ্য ইউটিউবের গুণগান নিয়ে না। ইউটিউব থেকে কিভাবে আয় করা যায় তা নিয়েই আজকের আর্টিকেল।  আইডিয়া টা খুব সোজা। আমরা ইউটিউবে বিভিন্ন ভিডিও দেখলে ভিডিওর আগে একটা এড দেখি প্রায়, তাই না? আবার কখনো কখনো ভিডিওর মাঝখানে নিচ থেকে একটা এড উঠে আসে। এগুলো দেখানোর জন্য ইউটিউব কে বিভিন্ন কোম্পানি অনেক টাকা দেয়। এখন ইউটিউব যেটা করে তা হল সেই টাকার একটা ক্ষুদ্র পার্সেন্টেজ সে শেয়ার করে ভিডিও যে আপলোড করেছে তার সাথে।  যদিও কোন কোম্পানির এড, কোন দেশ থেকে দেখছে মানুষ এরকম অনেক ব্যপারের উপর আয় ভ্যারি করে তবে ধরে নেয়া যায় প্রতি ১ হাজার আসল ভিউ এর জন্য ইউটিউব ১ থেকে ৩ ডলার দিয়ে থাকে বাংলাদেশের ইউটিউবার দের। এবার চলুন দেখি ইউটিউব থেকে কিভাবে আয় করা যায়।  ইউটিউব থেকে আয় করার স্টেপ গুলো  কিছু করার আগে প্রথমেই আপনার একটা ভাল টপিক ভাবতে হবে। হতে পারে ফানি কিছু, হতে পারে খেলাধুলা, হতে পারে টিউটোরিয়াল বা অন্য কিছু। আপনাকে স্ক্রিন এর সামনে আসতেই হবে তা কিন্তু না। অনেকেই আছেন টিউটোরিয়াল রেকর্ড করেই হাজার হাজার ডলার আয় করেন। আবার অনেকে আছে গেম খেলে এবং রেকর্ড করে, এমন কি মোবাইল গেম খেলে রেকর্ড করেও বিশাল আয় করে থাকেন।  যাই হোক, স্টেপ এ আসি আমরা।  স্টেপ ১ঃ টপিক খুঁজে বের করা  আপনার পছন্দের টপিক টি খুঁজে বের করুন। প্র্যাঙ্ক টাইপ কিছু করা থেকে দূরে থাকুন কারণ বাংলাদেশের আইন তা সাপোর্ট করে না। ঝামেলায় পড়ে যেতে পারেন। কোন ছোট টপিক নিয়ে শুরু করুন কিন্তু একটি টপিক এ থাকার চেষ্টা করুন। আমরা যেমন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল (passive journal university) এ শুধু উদ্যোগ, ডিজিটাল মার্কেটিং এবং অনলাইন আন্ট্রাপ্রেনারশিপ নিয়ে কথা বলি। আপনার যে বিষয় ভাল লাগে তা নিয়ে রিসার্চ করুন, কি কি ভিডিও আছে দেখুন এবং শুরু করুন।  আপনি যদি ইউটিউব দিয়ে বড়লোক হতে চান, কপিপেস্ট ভিডিও বা ২-৩ টা ভিডিও মিলে একটা বানানো বাদ দিয়ে ইউনিক এবং ক্রিয়েটিভ কিছু করার চেষ্টা করুন।  স্টেপ ২ঃ চ্যানেল খুলুন [...]
পডকাস্ট ৩ঃ ফ্রিল্যান্সিং কি? কেন? কিভাবে করতে হয়?
  এই পডকাস্টে যা যা নিয়ে কথা বলা হয়েছেঃ ফ্রিল্যান্সিং/আউটসোর্সিং কি? কিভাবে করতে হয় ফ্রিল্যান্সিং বা আউটসোর্সিং? কি কি কাজ[...]
পডকাস্ট ২ঃ কি কি ভাবে অনলাইনে আয় করা যায়?
অনলাইনে আয় করার উপায় গুলো কি কি আসলে? ভাল বা আসল উপায় কোনগুলো এবং কোন পথ গুলো তে যাওয়া একদম[...]
আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং কি?
যা যা জানতে পারবেন এই পডকাস্ট টি থেকেঃ - এফিলিয়েট মার্কেটিং কি - আমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং কি - কিভাবে শুরু[...]

ছোট ছোট সফলতার গল্প! 

Copyright 2018 by Passive Journal University